Home » Computer Tricks » জেনে নিন কম্পিউটারের সাধারণ কিছু সমস্যা এবং তার প্রতিকার!! [ট্রাবলশুটিং শেষ পর্ব]

জেনে নিন কম্পিউটারের সাধারণ কিছু সমস্যা এবং তার প্রতিকার!! [ট্রাবলশুটিং শেষ পর্ব]

Guest
Total Post 16


আসসালামুআলাইকুম । এই পোস্টটি গত পর্বে আমি ৭ টি সমস্যা ও তার প্রতিকার নিয়ে আলোচনা করেছিলাম। আজকে আরো কয়েকটি সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আলোচনা করব।

মাউস ডিটেক্ট করে না কিংবা মাউস কাজ করে না।


  • কম্পিউটারের সাথে মাউসের ক্যাবল সংযোগ ঠিক আছে কিনা দেখুন এবং ভালোভাবে লাগিয়ে পুনরায় চেষ্টা করুন।
  • পোর্ট পরিবর্তন করে দেখুন।
  • অন্য একটি ভালো মাউস পোর্টে লাগিয়ে দেখুন।
  • বায়োসে প্রবেশ করে দেখুন মাউস ডিজ্যাবল করা আছে কিনা। যদি থাকে এনাবল করে দিয়ে সেইভ করে বায়োস থেকে বের হয়ে আসতে হবে।
  • এরপরও যদি সমস্যা সমাধান না হয় তবে একটি ভালো মাউস লাগিয়ে নিন। সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

মনিটরে কোনো পাওয়ার নেই।


  • পাওয়ার বোতাম বা সুইচ চালু আছে কিনা দেখতে হবে।
  • AC পাওয়ার কর্ডটি মনিটরের পেছনে এবং পাওয়ার আউটলেটে ভালোভাবে সংযুক্ত আছে কিনা নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে।
  • মনিটরের সাথে সংযুক্ত VGA ক্যাবলটি ভালো কিনা বা সঠিকভাবে সংযুক্ত আছে কিনা তা চেক করতে হবে।

মনিটরের পাওয়ার অন বা চালু কিন্তু পর্দায় কোনো ছবি নাই।


  • মনিটরের সাথে সরবরাহকৃত ভিডিও ক্যাবলটি কম্পিউটারের পেছনে মজবুতভাবে লাগানো আছে কিনা তা নিশ্চিত হতে হবে। যদি ভিডিও ক্যাবলটির অপর প্রান্তটি স্থায়ীভাবে মনিটরের সাথে যুক্ত না থাকে, তাহলে এটিকে দৃঢ়ভাবে লাগিয়ে দিতে হবে।
  • ব্রাইটনেস (Brightness) এবং কন্ট্রাস্ট ঠিক করে দেখতে হবে।

প্রিন্টারে প্রিন্ট হচ্ছে না।


  • প্রিন্টারের সাথে পাওয়ার ক্যাবলটি সংযুক্ত আছে কিনা দেখতে হবে।
  • প্রিন্টার অন/চালু করা আছে কিনা তা দেখতে হবে।
  • কম্পিউটারের সাথে প্রিন্টারের ডাটা ক্যাবলটি সংযুক্ত আছে কিনা দেখতে হবে।
  • প্রিন্টারের ভেতরে কোনো কাগজ বা অন্য কোনো কিছু আটকে আছে কিনা তা প্রিন্টার খুলে ভালোভাবে পরীক্ষা করতে হবে।
  • প্রিন্টারের কার্টিজে কালি আছে কিনা তা দেখুন অথবা প্রিন্টার থেকে কার্টিজটি খুলে ভালোভাবে নেড়ে পুনরায় কার্টিজটিকে যথাযথ স্থানে স্থাপন করতে হবে।
  • প্রিন্টার চালু করার সাথে সাথে যদি লাল কিংবা ব্লিংকিং হলুদ বাতি জ্বলতে থাকে তাহলে প্রিন্টার রিসেট বাটনে চাপ দিতে হবে।
  • যদি সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে নতুন করে প্রিন্টারের সাথে সরবরাহকৃত ড্রাইভার ইনস্টল করতে হবে।
  • হার্ডওয়্যারে অভিজ্ঞ কোনো ব্যক্তির সাথে পরামর্শ করতে হবে।

কিছু কথা

বর্তমানে কম্পিউটার আমাদের জিবনের একটি গুরুত্বপুর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। যেহেতু এটি একটি যন্ত্র তাই এটিএ নিজিস্ব চিন্তা করার ক্ষমতা নাই। একারণে, এই যন্ত্রটির রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব তার ব্যবহারকারীদের উপরেই বর্তায়। যদি যথাযথ যত্ন না নেও্য়া হয় তাহলে খুব দ্রুতই এই যন্ত্রটি ব্যবহারের অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে। এই রক্ষণাবেক্ষণ হওয়া উচিত যান্ত্রিক এবং প্রোগ্রামভিত্তিক উভয়ই। এর জন্য কোনো এক্সপার্ট হওয়ার প্রয়োজন নেই। সাধারণ কিছু ট্রাবলশুটিং জানলেই কাজ হয়ে যাবে। আর সপ্তাহে অন্তত একবার পুরো সিপিইউ একবার ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে। বিশেষ করে কুলিং ফ্যান এবং প্রসেসরের হিট সিঙ্ক পরিষ্কার করা জরুরি। অনেক ক্ষেত্রেই কম্পিউটারের সমস্যার কারণ হয় PSU (Power Supply Unit) তাই সমস্যা থেকে প্রতিরোধের জন্য পাওয়ার অ্যাডাপ্টার ব্যবহার করা যেতে পারে। সফটওয়্যার ভিত্তিক রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সবসময় সকল সফটওয়্যারের সর্বশেষ সংস্করণ ব্যবহার করতে হবে। এরই সাথে সবসময় একটি আপগ্রেড অ্যান্টি ভাইরাস সচল রাখতে হবে। এছাড়া কম্পিউটারের যেকোনো সমস্যায় যোগাযোগ করতে পারেন আমার সাথে
Facebook link

আমি Jo5 আজকে এখানেই বিদায় নিচ্ছি। খুব শীঘ্রই দেখা হবে পরবর্তী কোনো আর্টিকেলে। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আর অবশ্যই ঘরে থাকুন।

3 months ago (April 21, 2020) 218 Views